সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৫:৪৯ অপরাহ্ন

আল্লামা শফী’র কবর জিয়ারত ও হাটহাজারী মাদরাসা পরিদর্শনে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৯১ বার পঠিত

এইচ.এম.আব্বাসঃ গণ প্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো.ফরিদুল আলম খান হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা আমির ও হাটহাজারী মাদরাসার সাবেক মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী(রা.)এর কবর জিয়ারত ও হাটহাজারী মাদরাসা পরিদর্শন করেছেন। শুক্রবার(৫ ফেব্রুয়ারী)জুমার নামাজের পূর্বে মাদরাসার মসজিদে আতিক এর সামনে জিয়ারত শেষে মোনাজাত করেন।এর আগে চট্টগ্রাম নাজিরহাট সড়কের মাদরাসার প্রধান গেইটে নেমে পায়ে হেঁটে নুর মসজিদ মাকবারায়ে হাবিবিতে হাটহাজারী মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা হাবিবুল্লাহ রহ.আল্লামা শাহ আবদুল ওহাব রহ.কবর জিয়ারত করেন।পরে জুমার নামাজের জন্য মজিদের করিমে প্রবেশ করেন।খুৎবার পূর্ব মুহুর্তে আগত মুসল্লি ও ছাত্রদের উদ্যেশ্যে বক্তব্যে বলেন,বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর ভাল নজর থাকার কারনে আমি ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হতে পেরেছি।আমি এ পদে যোগ দিয়ে বিভিন্ন মাদরাসার সহ বার আওলিয়ার পদভূমি পরিদর্শন করেছি।আমি ইসলামের খেদমত যেন করতে পারি সকলে দোয়া করবেন,সরকার ইসলামের খেদমতে পরিপূর্ণ বদ্ধপরিকর।তাই আপনাদের সহযোগী কামনা করছি।

এদিকে নামাজের পর হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী উপস্থিত ধর্মপ্রতিমন্ত্রী ও মুসল্লিদের নিয়ে সরকার,দেশ ও জনগনের শান্তি কামনায় দোয়া মোনাজাত করেছেন।পরে মন্ত্রীর সাথে হাটহাজারী মাদরাসার বিষয়ে বিভিন্ন দিক নিয়ে হেফাজতের আমিরের একান্ত আলোচনা হয় বলে জুনায়েদ বাবুনগরী সাংবাদিকদের জানান।তিনি আরো বলেন,মন্ত্রী নিজেও বলেছেন আল্লামা শফীর মৃত্যু স্বাভাবিক হয়েছেন।মন্ত্রী শফী হুজুরের খুব মহব্বতের মানুষ।তাই প্রথম বারের মত হাটহাজারী মাদরাসায় তিনি এসেছেন।আমরা নবীর সুন্নাত মোতাবেক মেহমানদারি করেছি।তিনি আবারো আসবেন বলে জানিয়েছেন হেফাজত আমির বাবুনগরী।

দুপুরের মধ্যাহ্নভোজের পর ধর্ম প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন,বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট,আমরা জনপ্রতিনিধি হিসেবে বিভিন্ন জায়গায় পরিদর্শন করে।তারই ধারাবাহিকতার হাটহাজারী মাদরাসায় এসেছি। হুজুরের কবর জিয়ারত করেছি।বিশেষ করে চট্টগ্রামে আসা মুল উদ্দেশ্য এটি বার আওলিয়ার দেশ।বিশেষ করে আল্লামা শাহ আহমদ শফী হুজুরের কবর জিয়ারতেই ছিল মূল উদ্দেশ্য।যারা হাটহাজারী মাদরাসা প্রতিষ্ঠাতা করেছে তাদের কবরও জিয়ারত করেছি।এই মাদরাসা মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করেছি আল্লাহর সন্তুষ্ঠির জন্য।আমরা খুশি এ জন্যই আমাদের সম্প্রীতিটা বজায় রাখতে পেরেছি।এ সম্প্রতি বজায় রেখে যেন ইসলামের মর্যাদা রক্ষ করতে পারি সে হিসেবে কাজ করে যাব।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,ধর্ম প্রতিমন্ত্রী সচিব নুরুল ইসলাম পিএইচডি,হেফাজত আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী,ইসলামি ফাউন্ডেশন চট্টগ্রের ভারপ্রাপ্ত ডিজি ফারুক আহমদ,উপসচিব আবদুল হামিদ জামানদার,ইফা,চট্টগ্রাম বিভাগের পরিচালক আবুল আহসান মোহাঃ বোরহান উদ্দিন,উপ পরিচালক মো.সেলিম উদ্দিন
সহকারী পরিচালক মো.মনিরুজ্জামান
পরিচালনা পরিষদের সদস্য মাও.ইয়াহিয়া,মুফতি জসিম উদ্দিন,জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান,উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এম এ সালাম,মাও আহমদ দিদার,মাও.নুরুল আবছার আল আজহারী আনোয়ার শাহ আল আজহারী,উপজেলা চেয়ারম্যান রাশেদুল আলম চৌধুরী রাশেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সভাপতি এডভোকেট মোহাম্মদ আলী,সাধারন সম্পাদক সোহরাব হোসেন চৌধুরী নোমান উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আকতার হোসেন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক নাজমুল হুদা মনি,মাও.শফিউল আলম সহ কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সাকারিয়া চৌধুরী সাগর।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
Developed By Jagroto Chattogram
banglawebs999995