করোনায় জনগণের পাশে থাকা সময়ের মানবিক দাবী: রেজাউল করিম চৌধুরী

0 ১১১

আল আমিন,চট্টগ্রামঃ নগরীর শ্রমজীবী, কর্মহীন, দুস্থ-অসহায়, দিনমজুর ও খেটে খাওয়া মানুষদের সার্বিক সহযোগিতায় এগিয়ে আসার জন্য চট্টগ্রামের বিভিন্ন সংগঠন, ফাউন্ডেশন ও ধনাঢ্য ব্যক্তিদের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও চসিক মেয়র পদপ্রার্থী বীর মু্ক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম চৌধুরী।

তিনি আরও বলেন, উন্নত দেশগুলোতে দ্রুত করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এ ভাইরাস প্রতিরোধে অধিকাংশ দেশ হিমশিম খাচ্ছে। সেক্ষেত্রে গরিব দেশ বাংলাদেশ। সঙ্গত কারণে করোনাভাইরাস বাংলাদেশে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়লে তা ভয়াবহ রূপ নিতে পারে। তাই এই ভাইরাস ব্যাপকভাবে ছড়ানোর আগেই সচেতনতা বৃদ্ধি করা খুবই প্রয়োজন। এরই মধ্যে বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জাতির উদ্দেশে দিক-নির্দেশনামূলক বিভিন্ন নীতিমালা ও বক্তব্য দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর সময়োপযোগী নীতিমালা ও বক্তব্যে জনগণ আন্তরিকভাবে সচেতন হয়েছেন।

বাংলাদেশ শিক্ষা ও গবেষণা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কর্মহীন অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্য ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ শিক্ষা ও গবেষণা ফাউন্ডেশনের খাদ্য ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন চসিক ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব লায়ন এম আশরাফুল আলম, বাংলাদেশ শিক্ষা ও গবেষণা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আ.ম. কাজী মুহাম্মদ হারুন উর রশীদ, ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি অধ্যক্ষ এম সোলাইমান কাসেমী

চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ মুকতাদের আজাদ খান, ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. শামসুল আলম, আলহাজ মোহাম্মদ আবু সৈয়দ, এডভোকেট ধৃতিমান আইচ, সৈয়দ কাবেদুর রহমান কচি,অধ্যক্ষ ডা. আনোয়ার হোসেন মানিক, নুর মোহাম্মদ,সাংবাদিক এস.ডি.জীবন, মো. আলমগীর, আব্দুর রাজ্জাক, ইউসুফ মাহমুদ মিনার, মো. সাইফুদ্দিন, আনোয়ার হোসেন, আলী বেলাল শাহেদ, আবু সাঈদ সুমন, জামাল হোসেন, দেলোয়ার হোসেন বাচা, জাবেদুল ইসলাম জাবেদ, মহিউদ্দিন মানিক, নুরুন্নবী শাহেদ, মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল আহসান হিমেল, মো. রাকিব হাসান, দেলোয়ার হোসেন সুমন, তৌহিদুল ইসলাম বাবু, মুহিদ রাজু,মোহাম্মদ ইরাদ, মো.আজিজুল ইসলাম প্রমুখ।

চসিক ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর লায়ন এম আশরাফুল আলম বলেন, করোনা ভাইরাসে গৃহবন্দী অসহায়দের পাশে দাঁড়ানো বিত্তবানদের নৈতিক দায়িত্ব। বাংলাদেশ শিক্ষা ও গবেষণা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আ.ম. কাজী মুহাম্মদ হারুন উর রশীদ বলেন, এই ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই মানবতার কল্যাণে কাজ করছে এবং আগামীতেও আমাদের কাজের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে-ইনশাআল্লাহ। বাংলাদেশ শিক্ষা ও গবেষণা ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি অধ্যক্ষ এম সোলাইমান কাসেমী বলেন, করোনা মহামারীর এই কঠিন সময়ে মধ্যবিত্তদের সংকট উত্তরণে সরকার ও ধনাঢ্য ব্যক্তিদের এগিয়ে আসতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.