কুমিল্লার বরুড়া উপজেলায় ভ্রাম্যমাণের অভিযানে ৩ হাসপাতালকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা

0 ৮৭৫,৪৯১

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার পৌরসভা এলাকায় লাইসেন্স ছাড়া হাসপাতাল ও ক্লিনিকে পৌরসভায় লাইসেন্স ছাড়া হাসপাতাল ও ক্লিনিক পরিচালনা, মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট,অপরিচ্ছন্ন ল্যাব,সার্টিফিকেট বিহীন ল্যাব টেকনোলজিস্ট দ্বারা ল্যাব পরিচালনা করার অপরাধে ৩টি হাসপাতালকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

হাসপাতাল গুলো হলো,ইসডো ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে লাইসেন্স নবায়ন না করায় পাঁচ হাজার টাকা,বরুড়া ডয়াবেটিক সেন্টার ও রেঁনেসা হসপিটালে লাইসেন্স নবায়ন না থাকা,মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট রাখা,পর্যাপ্ত জায়গা না নিয়ে ল্যাব পরিচালনা করা এবং যথাযথ ল্যাব টেকনোলজিস্ট দিয়ে পরীক্ষা না করায় এই দুটি প্রতিষ্ঠানকে ৩০ হাজার টাকা করে মোট ৩ টি প্রতিষ্ঠানকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।ভ্রাম্যমাণ অভিযান পরিচালনার সময়ে কয়েকটি ক্লিনিকের লোকজন ক্লিনিক বন্ধ করে পালিয়ে যান।

আজ ১৯ সেপ্টেম্বর রোজ মঙ্গলবার বরুড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মোঃ মঈন উদ্দিনের নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে আর উপস্থিত ছিলেন ডাঃ নূরেন তাসকীন তুলি,ডাঃ সিফাত সালেহ,ডাঃ তানজিম মজুমদার এবং বরুড়া থানা পুলিশের একটি চৌকষ দল।

এ বিষয়ে বরুড়া উপজেলার সহকারী কমিশনার(ভূমি) মোঃ মঈন উদ্দিন বলেন,লাইসেন্স ছাড়া হাসপাতাল ও ক্লিনিকে পৌরসভায় লাইসেন্স ছাড়া হাসপাতাল ও ক্লিনিক পরিচালনা, মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট,অপরিচ্ছন্ন ল্যাব,সার্টিফিকেট বিহীন ল্যাব টেকনোলজিস্ট দ্বারা ল্যাব পরিচালনা করার অপরাধে ৩টি হাসপাতালকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।তিনটি প্রতিষ্ঠানকে উক্ত অপরাধের দায়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন,২০০৯ এর ৪৫ ধারা এবং মেডিকেল প্র্যাকটিস এবং বেসরকারী ক্লিনিক ও ল্যাবরেটরী (নিয়ন্ত্রণ)অধ্যাদেশ,১৯৮২ এর ১৩ ধারা মোতাবেক ৬৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।এবং জনস্বার্থে এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!