গোলাম রাব্বানীর মরদেহ সোনারগাঁওয়ে উদ্বারের ঘটনায় বিএসসিএস এর ক্ষোভ প্রকাশ।

0 ৩০০,৪৮০

অপরাধীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় কথা বলা,সংবাদ প্রকাশ ও ফেসবুকে লাইভ করার কারণে সোনারগাঁয়ের তরুন সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী(সাইফুল)অবশেষে হত্যার শিকার হতে হলো।নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের পৌর এলাকার খাসনগর দিঘি থেকে এই সাংবাদিকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করছে পুলিশ।পরিবারের দাবি, তাকে ডেকে নিয়ে হত্যা করেছে মাদকসেবীরা।

বৃহস্পতিবার সকালে খাসনগর দিঘির উত্তর পাড় থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সোনারগাঁয়ে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে বসবাসকারী গোলাম রাব্বানী হত্যার ক্লু উদঘাটন করে অবিলম্বে জড়িতদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম-বিএমএসএফ।এদিকে শোকার্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন নেতৃবৃন্দ।

এলাকাবাসী জানায়,বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার পৌরসভার খাসনগর দিঘিরপাড় গ্রামের দিঘির উত্তরপাড়ে একটি লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়।

গোলাম রাব্বানী।খাসনগর দিঘির উত্তর পাড়ে রতন মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া।তার গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলা সন্তোষপুর ইউনিয়নের বানার বাড়ির মানিক মিয়ার একমাত্র ছেলে।

রাব্বানীর স্ত্রী আঁখি নুর জানান,তারা প্রায় তিন বছর ধরে রতন মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকেন।স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে মাদক সেবনকারীর সাথে তার সমস্যা হয়।গত মঙ্গলবার রাতে পিয়াল নামে একজন তাকে ফোনে ডেকে নিয়ে যায়।

তিনি জানান,পিয়াল ও তার আরও ৫ জন সহযোগী মিলে আমার স্বামীকে হত্যা করেছে।আমি স্বামী হত্যার বিচার চাই।পিয়াল যখন ফোন করে তখন আমার স্বামীর সাথে আমি ছিলাম।

সোনারগাঁ থানার ওসি হাফিজুর রহমান জানান, খাসনগর দিঘিরপাড় এলাকার দিঘি থেকে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী(সাইফুল)হত্যার বিষয়ে বাংলাদেশ সাংবাদিক ক্রাইম সংগঠন(বিএসসিএস)এর চেয়ারম্যান খান সেলিম রহমান অবিলম্বে হত্যাকান্ডের ক্লু উদঘাটনসহ জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার দাবি করেন।

সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী(সাইফুল) হত্যাকান্ডের সুষ্ঠ তদন্ত ও বিচারের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ সাংবাদিক ক্রাইম সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াদুল মামুন সোহাগ।তিনি বলেন,আমার জানামতে কিছু মাদক ব্যবসায়ীর চরিত্র উন্মোচনের জন্য নিজের ফেইসবুকে লাইভ দিলে মাদক ব্যবসায়ীরা তার উপর রেগে এই এমন হত্যা কান্ড ঘটিয়েছে।আমরা এই হত্যার বিচার দাবি করছি।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.