চট্টগ্রাম মহানগরীর বন্দর থানাধীন মাইলের মাথা এলাকায় র‍্যাব-৭ এর অভিযানে ২জন ভূয়া এমবিবিএস ডাক্তার গ্রেফতার।

0 ১০৯

চট্টগ্রাম মহানগরীর বন্দর থানাধীন মাইলের মাথা এলাকায় র‍্যাব-৭ এর অভিযানে ২জন ভূয়া এমবিবিএস ডাক্তার গ্রেফতার।র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদ্ঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃঙ্খলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম অস্ত্রধারী সস্ত্রাসী,ডাকাত,ধর্ষক,চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী,খুনি,বিপুল পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার,মাদক উদ্ধার,ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করায় সাধারণ জনগনের মনে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

র‌্যাব-৭,চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে,চট্টগ্রাম মহানগরীর বন্দর থানাধীন মাইলের মাথা এলাকায় সিফাত মেডিকেল হল নামীয় ফার্মেসী এবং শাহ আব্দুল মালেক মেডিকেল নামীয় চেম্বারে কতিপয় ব্যক্তি ভূয়া এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয়ে চেম্বার খোলে চিকিৎসার নামে নিরীহ রোগীদের সাথে প্রতারণা করছে।

উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ১৬ আগস্ট ২০২১ ইং তারিখে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আসামি যীশু চৌধুরী (৪৪),পিতা-মৃত পরিমল চৌধুরী,সাং-দক্ষিন,থানা- পটিয়া,জেলা- চট্টগ্রাম,বর্তমানে নন্দন কানন,থানা- কোতয়ালী,চট্টগ্রাম মহানগরী ও আশীষ মজুমদার (৩৮),পিতা-সুনীল চন্দ্র মজুমদার,সাং-গোবিন্দপুর, থানা-জোরারগঞ্জ,জেলা-চট্টগ্রাম,বর্তমানে- মাইজপাড়া,থানা-পতেঙ্গা,চট্টগ্রাম মহানগরীকে আটক করে।

পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে নিজেদের ভূয়া ডাক্তার বলে স্বীকার করলে আসামীদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামীদের ফার্মেসী এবং চেম্বার তল্লাশি করে বিভিন্ন ধরণের ভূয়া ডাক্তারী সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় যে,তারা দীর্ঘদিন যাবত ভূয়া এমবিবিএস ডক্তার সেজে নিরীহ রোগীদের নিকট ডাক্তারী ব্যবস্থাপত্র প্রদান করত।তাদের নিকট থেকে প্রতারণামূলক ভাবে অবৈধ অর্থ আত্মসাৎ করে আসছে।গ্রেফতারকৃত আসামী সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে চট্টগ্রাম মহানগরীর বন্দর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!