জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মিরপুর প্রেসক্লাবের উদ্দ্যেগে মিরপুর দারুসসালাম সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে মিলাদ মাহফিল ও দারিদ্রভোজন।

0 ৫১০,২৪৫

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মিরপুর প্রেসক্লাবের উদ্দ্যেগে মিরপুর দারুসসালাম সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে মিলাদ মাহফিল ও দারিদ্রভোজন।

মিরপুর প্রেসক্লাবের উদ্দ্যেগে মিরপুর দারুসসালাম সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে মিলাদ মাহফিল ও দারিদ্রভোজন এর আয়োজন করা হয়।

মিরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি এম.এন জামান কামালের সভাপতিত্বে উক্ত মিলাদ মাহফিল ও দারিদ্র্যভোজন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,বীর মুক্তিযোদ্ধা আগা খান মিন্টু,মাননীয় সংসদ সদস্য, ঢাকা-১৪ আসনের সাংসদ ও মিরপুর প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা আগা খান মিন্টু।

এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সদস্য আবুল হাসনাত,সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,মিরপুর থানা আওয়ামী লীগের নেতা হায়দার আলী বহুলুল,দারুসসালাম থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ ইসলাম।

এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন মিরপুর প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি এস এম বদরুল আলম,সিনিয়র সহ-সভাপতি ও দৈনিক মাতৃজগত পত্রিকার সম্পাদক খান সেলিম রহমান,সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম,যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ মাহবুব উদ্দিন,যুগ্ম সম্পাদক এটিএম সামসুজ্জামান,যুগ্ম সম্পাদক সাইদুর রহমান খোকন,সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আতিয়ার রহমান পাখি,সহ-প্রচার সম্পাদক সোহরাব হোসেন বাবু,রুবিনা শেখ,মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রাবিয়া খাতুন,সহ-মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ফরিদা পারভীন ববি,সমাজ কল্যাণ সম্পাদক শফিকুর রহমান শফি, ত্রাণ ও দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক সর্দার মাজাহারুল,প্রকাশনা ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সিরাজুম মুনিরা,নির্বাহী সদস্য ছাইফুল ইসলাম রহিম, সুমী রহমান ও মিরপুরের সাংবাদিকবৃন্দ।

বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখেছিলেন সোনার বাংলা গড়তে আর তাই ছাত্র জীবন থেকে এদেশের মানুষের কল্যাণে আত্ম নিয়োগ করেন সেবামূলক কাজে।মাত্র ৫৬ বছর বয়সে দীর্ঘ সময় জেলে ছিলেন শুধু স্বপ্ন দেখতেন কিভাবে বাঙ্গালী জাতির উন্নতি করা যায়।সেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার সাথে জড়িত সকলের শাস্তির দাবী করেন বক্তারা।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.