বংশালে নগর প্লাজা মার্কেটে চুরির ঘটনায় দুইজন গ্রেপ্তার, চোরাই মালামাল উদ্ধার

0 ২৫৯
রাজধানীর বংশালে নগর প্লাজা মার্কেটে চুরির ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগের লালবাগ জোনাল টিম।গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- মোঃ হাসিব মিয়া ও মোঃ শহীদুল্লাহ। গ্রেপ্তারের পর তাদের হেফাজত থেকে চোরাইকৃত ১০ বস্তা জুতা (৩৭৭ জোড়া) উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য ৫ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা।গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ২৯ অক্টোবর (বৃহস্পতিবার) কামরাঙ্গীরচরে অভিযান চালিয়ে প্রথমে হাসিব মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার দেয়া তথ্যমতে একইদিনে রাজধানীর রামপুরা এবং ডেমরা এলাকার ৩টি জুতার দোকান থেকে চোরাই জুতা উদ্ধারসহ দোকানের মালিক মোঃ শহীদুল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়।প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, হাসিব মিয়া একজন সংঘবদ্ধ জুতা চোর দলের সক্রিয় সদস্য। গ্রেপ্তারকৃত হাসিব ও তার পলাতক অপর এক সহযোগী মিথ্যা পরিচয়ে রাজধানীর বিভিন্ন মার্কেটে গোডাউন ভাড়া করত। তাদের আরেক পলাতক সহযোগী বিভিন্ন দোকানের সেলসম্যানের চাকরি নিয়ে গোডাউনের তালা চাবির ছবি তুলে হাসিবকে দিত। তারা পরিচিত তালা মিস্ত্রির মাধ্যমে ডুপ্লিকেট চাবি তৈরি করে নিত। এরপর ডুপ্লিকেট চাবি দিয়ে সুযোগ বুঝে নিকটে থাকা অন্যান্য গোডাউন থেকে জুতা চুরি করে নিজেদের গোডাউনে তুলতেন। বংশালের গোডাউন থেকে চুরি যাওয়া মালামাল গ্রেপ্তারকৃত শহীদুল্লাহর কাছে বিক্রি করেন তারা।গত ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ নগরপ্লাজা মার্কেটের লাবিবা ট্রেডার্স এর গোডাউন থেকে আনুমানিক ছাব্বিশ লক্ষ টাকা মূল্যের জুতা চুরি হয়। এ ঘটনায় বংশাল থানায় একটি মামলা রুজু হয়। মামলাটি থানা পুলিশের পাশাপাশি ছায়াতদন্ত শুরু করে গোয়েন্দা পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃতদেরকে শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করলে এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে।গ্রেপ্তারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের ওপর ভিত্তি করে বাকী চোরাই মালামাল উদ্ধারের জন্য অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে গোয়েন্দা বিভাগ সূত্রে জানা যায়।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!