বাঁশখালীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান ৭০ হাজার টাকা জরিমানা,৭শ’ ফুট পাইপ জব্দ।

0 ৩০০,৩২৬

বাঁশখালীতে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা আদায়,৭০০ ফুট পাইপ জব্দ ও ২৫ শতক বেদখলীয় সরকারি খাস জমি উদ্ধার করা হয়েছে।বুধবার(২৪ আগস্ট)সকালে উপজেলার পুকুরিয়া ইউনিয়নের পুকুরিয়া ৯নং ওয়ার্ডে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও বিক্রির দায়ে মো. কাওসার(৩৮)কে বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থপনা আইন ২০১০ এর ১৫ ধারায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি)এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মাহমুদুল হাসানের নেতৃত্বে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়।

এ সময় বালু উত্তোলনের কাজে ব্যবহৃত ৭০০ ফুট পাইপ জব্দ করে স্থানীয় সাধারণ সদস্য মামুনুর রশীদের জিম্মায় দেওয়া হয়।

এর আগে অপর অভিযানে বাঁশখালী উপজেলার জলদী,জঙ্গল কালীপুর ও কাথরিয়া ইউনিয়নে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা আদায় ও ২৫ শতক বেদখলীয় সরকারি খাস জমি উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ভ্রাম্যমান আদালতও পরিচালিত হয় এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মাহমুদুল হাসানের নেতৃত্বে।

এই সময় পৌরসভার জলদী বাজারে তাহের ফার্মেসির সত্ত্বাধিকারী আবু তাহেরকে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ সংরক্ষণ ও বিক্রি,কোনো রকম প্রাতিষ্ঠানিক ডিগ্রি ব্যতীত রোগী দেখা ও প্রেসক্রিপশন প্রদান, যথাযথভাবে ইনজেকশনসহ জীবন রক্ষাকারী ঔষধ সংরক্ষণ না করা ও রোগীকে ইনজেকশন পুশ করার অপরাধে ১০ হাজার টাকা,কাথরিয়া বাজারে অননুমোদিতভাবে রাস্তার উপর গ্যাস সিলিন্ডার রাখায় কায়সার স্টোরের মালিক কায়সারকে ৫ হাজার টাকা ও মায়ের দোয়া বুক হাউজের মালিক জসীমউদ্দিনকে ৫ হাজার টাকা সহ মোট ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.