বান্দরবানের দুর্গম পাহাড়ি ঝরনাগুলোতে পর্যটকদের যাতায়াত বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন।

0 ১৪০

উচহ্লা মারমাঃ গত ৩ অক্টোবর বান্দরবানের থানছি উপজেলার দুর্গম নাফাখুম ঝরনায় গোসল করতে গিয়ে ঢাকার পর্যটক মারা যাওয়ার পর প্রশাসন এ নির্দেশনা জারি করেছে। সোমবার প্রশাসন এ নির্দেশনা জারি করে। বর্তমানে বান্দরবানের থানছি, রুমা ও রোয়াংছড়ি উপজেলার ঝরনাগুলোতে পর্যটকদের যাতায়াত বন্ধ রয়েছে। এছাড়া বান্দরবানের অন্য পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে বেড়াতে যাওয়া পর্যটকদের নিরাপত্তাও জোরদার করেছে প্রশাসন। গত ৩ অক্টোবর সকালে ঢাকার উত্তরার জহিরুল ইসলামের ছেলে জাকারুল ইসলাম কানন থানছি উপজেলার দুর্গম রেমাক্রি ইউনিয়নের নাফাখুম ঝরনায় বেড়াতে গিয়ে প্রবল স্রোতে ভেসে যায়। পরের দিন তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এর আগেও এই ঝরনায় গোসল করতে গিয়ে দুজন পর্যটক মারা যান। থানছি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুল হক পরিবর্তন ডটকমকে জানিয়েছেন, সাঙ্গু নদীর অববাহিকায় বৃষ্টিপাত হওয়ায় পাহাড়ের ঝরনাগুলো এ সময়ে উত্তাল রয়েছে। পর্যটকদের জন্য এসব ঝরনাগুলো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। ফলে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে এসব ঝরনাগুলোতে পর্যটকদের যাতায়াত আপাতত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পর্যটকদের যাতায়াত খুলে দেয়া হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.