মানব পাচার ও প্রতারকের খপ্পরে পড়ে নিঃস্ব

0 ৫০৬,৭৪২

লক্ষ্মীপুর জেলা চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন ১২নং চরশাহী ইউনিয়ন ৭ নং ওয়ার্ড সৈয়দপুর গ্রামের দুলামিঞা হাজী বাড়ির বাবুলের ছেলে মাহবুবুর রহমানের প্রতারণার স্বীকার লক্ষ্মীপুরের অনেকেই।

জীবিকার তাগিদে পরিবারের কথা চিন্তা করে সহায় সম্বল হারিয়ে বিদেশে যায় কিন্তু এই প্রতারক মাহবুবুর রহমান তাদেরকে নিয়ে চায়নাদের কাছে বিক্রি করে দেয়।সন্তান কে বাঁচানোর জন্য বাংলাদেশে ভিটেমাটি বিক্রি করে মুক্তিপনের টাকা দিয়ে তাদেরকে মুক্ত করেন অন্যথায় তাদেরকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।এ মানব পাচার কারীকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনি ব্যবস্থ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

লক্ষ্মীপুর জেলা চন্দ্রগঞ্জ থানার ১৩ নং দিঘলীর পুর্ব দিঘলী ওবাদুল্ল্যার বাড়ির মৃত হাফিজ উল্ল্যাহর ছেলে  সোহেল এবং পশ্চিম দিঘলীর তালাশ,চন্দ্রগঞ্জ থানা আওতাধীন দূর্গাপুর ১৩ নং দিঘলী আব্দুল্লাহ,নারায়নগঞ্জের রনি,মাহফুজুর রহমান, মাইজদীর রিদোয়ান,মোফরিদ উদ্দিনের বেলায়।

এমন আরো অনেকেই আছে বলে খবর পাওয়া গেছে।৮ জনের তথ্য এসেছে আমাদের হাতে।আরো নাম ঠিকানা অজানা আরো অনেকে প্রতারিত হয়েছে বলে জানা যায়।

প্রতারক মাহবুবুর রহমান কম্পিউটারে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে বিদেশে নিয়ে ৬-৭ হাজার ডলারের বিনিময়ে বিভিন্ন চায়না লোকদের নিকট বিক্রি করে দেয় আর এমনটাই দাবি করেন ভুক্তভোগীরা।

এই বিষয় মাহবুবের মোবাইল ফোনে এবং ওয়াটশপে ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!