মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৫:৩২ অপরাহ্ন

মোজাম্বিকে দুই বাংলাদেশির অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ২১ বার পঠিত

এইচ এম আব্বাস খান: মোজাম্বিকে দুই বাংলাদেশির অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু পূর্ব আফ্রিকার দেশ মোজাম্বিকে মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিন( ২৮) এবং ছাবের আহমদ (৩৫) নামে দুই বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। গত ২৩ই এপ্রিল মোজাম্বিকের জামবেজিয়া প্রদেশে মিলান্জি ডিসট্রিক্টের নুটুকো এলাকায় নিজ বাসায় তালাবন্ধ অবস্থায় দুজনকে মৃত পাওয়া যায়। খবর নিয়ে জানা যায়, মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিন এবং ছাবের আহমদ দুজন একি সাথে ২০১৬ সাল থেকে শেয়ারি ব্যবসা করে আচ্ছিলো। মিলান্জির পার্শবর্তি মালাউই বর্ডারে তাদের কয়কটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ছিলো। ছাবের আহমদ এবং মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিনের ছোট ভাই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালানা করতো। মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিন মিলান্জি শহরে থেকে দোকানের জন্য মালামাল পাঠানোর জন্য মিলান্জি শহরে থাকতো এবং মিলান্জি শহর থেকে কয়কদির পর পর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে টাকা তুলে আনতো। গত ২০ ই এপ্রিল মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিন মিলান্জি থেকে টাকা তুলার জন্য ছরোয়ার উদ্দিনের অংশীদার ছাবের আহমদ এর ব্যবসা প্রতিষ্টানে যায়।সেখানে যাওয়ার পর থেকে বৃষ্টি শুরু হয় যার কারণে ছরোয়ার উদ্দি ওখানে থেকে যায়। ২৩ই এপ্রিল সকালে মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিনের মিলান্জি শহরে চলে আসার কথা ছিলো কিন্তু সকালে মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিন কে মোবাইলে কল দিলে মোবাইল রিসিভ করে না। ছরোয়ার উদ্দিন কল রিসভ না করলে ছাবের আহমদকে কল দেওয়া হয় কিন্তু ছাবের আহমদও কল রসিভ করে না। এইভাবে সকাল থেকে বিকাল হয়েগেলো কল রিসিভ করে নাই। সন্ধার থেকে দুজনের মোবাইল বন্ধু হয়ে গেলো। তখন পার্শ্ববর্তী কিছু দুরে মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিনের ছোট ভাইয়ের দোকান ছিলো দুজনের মোবাইল যখন বন্ধ পাই তখন ছরোয়ার উদ্দিনের ছোট ভাই সহ কয়েক জন বাংলাদেশি রাত ৯টার সময় তাদের খোজ নিতে ছাবের আহমদের বাসায় আসে । বাসায় গিয়ে দেখা যায় বাসা তালাবন্ধ । অনেকক্ষণ ডাকাডাকি করা হলে তাদের কোন সাড়াশব্দ পাওয়া যায়নি ।সাড়াশব্দ না পাওয়ায় তারা দরোজার তালা ভেংগে ভিতরে ডুকে দেখা যায় দুজনই মৃত অবস্থায় পড়ে আছে। বাসার ভিতরে টাকা মোবাইল সহ সব কিছু ঠিকঠাক আছে এবং তাদের শরীরে কোন ধরণের কোন আঘাতের চিন্ন দেখা যায়নি। তাদের এমন মৃত্যুতে সব বাংলাদেশিরা হতভাগ। কেনো কি কারণে তাদের হঠাৎ এইভাবে মৃত্যু হলো কেউ কারণ খুজে পাচ্ছে না। তবে কেউ কেউ ধারণা করতেছে তারা যে রুমে ছিলো তার পাশের রুমে ভুট্রা রাখা হয়েছিলো সেই ভুট্রাতে পোকা না ধরার জন্য কিটনাশক (বিষ) দেওয়া হয়েছিলো সেই কিটনাশক (বিষ) এর কারণে শ্বাসরোদ্ধ হয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে। মৃত মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিন বাঁশখালী উপজেলায় সরল ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ডে বাদশা মিয়ার ছেলে। এই বছরের ডিসেম্বরে মোহাম্মদ ছরোয়ার উদ্দিন দেশে যাওয়ার কথা ছিলো। মৃত ছাবের আহমদ বাঁশখালী উপজেলার সরল ইউনিয়ের ৮নং ওয়ার্ডের আব্দুল মাতলবের ছেলে। ছাবের আহমদ গত মাসে বাংলদেশে ছুটি কাটিয়ে আচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Jagroto Chattogram
banglawebs999995