রামুর দক্ষিণ মিঠাছড়িতে বৈদ্যুতিক শকে বন্য হাতির মৃত্যু।

0 ২৩৩

রামু প্রতিনিধিঃ রামুর দক্ষিণ মিঠাছড়ির বনের পাশে মৃত পড়ে থাকা অবস্থায় একটি বন্য হাতির সন্ধান পেয়েছে বনবিভাগ। রোববার (১৫ নভেম্বর) বেলা ১১ টায় হাতিটির সন্ধান পেলেও বিকাল ৫টা পর্যন্ত ঘটনাস্থলেই পড়েছিল হাতিটি। তাৎক্ষণিক মৃত্যুর কারণও জানতে পারেনি বনবিভাগ।জানা গেছে, দক্ষিন মিঠাছড়ি ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের আওতাধীন খরলিয়া ছড়ার শাইরার ঘোনা এলাকায় মৃত হাতি পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। স্থানীয় এক কিশোর বনবিভাগের স্থানীয় পানেরছড়া রেঞ্জে খবর দেয়। পরে বেলা ১১ টায় পানেরছড়া রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান ঘটনাস্থলে যান।স্থানীয়দের অভিযোগ, স্থা্নীয় নুরুল হক বৈদ্যুতিক শক দিয়ে হাতিটিকে হত্যা করেছে।দক্ষিণ বনবিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান বিকাল ৪ টায় মুঠোফোনে জানান, হাতির মৃত্যুর কারণ এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি। উপরের অংশে কোন আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি। তবে দেখে মনে হচ্ছে হাতিটি বেশ বয়স্ক। ভেটেনারি সার্জনকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। তিনি ভেটেনারি সার্জন) আসলে মৃত্যুর কারণ নির্ণয় করা যাবে। এরপর উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।তৌহিদুর রহমান বলেন, যেখানে মৃত হাতিটি পড়ে রয়েছে সেটি জোত জমি। এরপাশেই বন। ঘটনাস্থলের প্রায় ২০০ মিটার দূরে বাড়িঘর রয়েছে। এসব বাড়িঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ আছে। হাতিটিকে বৈদ্যুতিক শক দিয়ে হত্যা করা হয়েছে কিনা খতিয়ে দেখা হবে। যেকোনভাবে হত্যা করার আলামত পেলে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!