সন্দ্বীপে বঙ্গবন্ধু যুব দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা,যুব ঋনের চেক ও সনদ বিতরন সম্পন্ন

0 ২২৭

বাদল রায় স্বাধীনঃ “মুজিব বর্ষের আহ্বান,যুব কর্মসংস্থান” এ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব দিবস -২০২০ উপলক্ষে আলোচনা সভা, যুব ঋনের চেক ও সনদ পত্র বিতরন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে সন্দ্বীপ উপজেলা প্রশাসন ও যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর। এছাড়াও প্রোগ্রামে সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা রিকল ২০২১ প্রজেক্ট এসডিআই, ঈপসা ও নারী প্রগতি সংঘ অংশ গ্রহন করেছে।

আজ ১ নভেম্বর সন্দ্বীপ উপজেলাস্থ কবি আব্দুল হাকিম পাবলিক অডিটরিয়ামে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দ্বীপরত্ম আলহাজ্ব মাহফুজুর রহমান মিতা এমপি।বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাঈন উদ্দীন মিশন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেবুন্নেছা চৌধুরী জেসি।

সভায় সভাপতিত্ব করেন সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ মামুন।অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় সংঙ্গীত পরিবেশনের পর স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শাহ-আলম।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন -উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ মাঈন উদ্দীন, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ ফজলুল করিম,রিকল প্রজেক্ট এসডিআই’র প্রকল্প সসমন্বয়কারী শ্যামল চন্দ্র রায়,নারী প্রগতি সংঘের ব্যবস্থাপক মোঃ শামসুদ্দিন, ঈপসার সমন্বয়কারী শাহিনুর রহমান,যুব প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর আলম, পাপিয়া আফরোজ প্রমুখ।

প্রধান অতিথি সাংসদ মাহফুজুর রহমান মিতা বলেন যুব সমাজ জাতির প্রাণশক্তি, উন্নয়ন ও অগ্রগতির প্রধান নিয়ামক। তারা সাহসী, বেগবান, প্রতিশ্রুতিশীল, সম্ভাবনাময় ও সৃজনশীল। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে মুক্তিসংগ্রামের দীর্ঘ পথপরিক্রমায় এদেশের যুবসমাজ ত্যাগ, তিতিক্ষা ও আত্মোৎসর্গের বিনিময়ে ১৯৭১ সালে ছিনিয়ে আনে স্বাধীনতার লাল সূর্য।যুবকরা চাকুরির দিকে চেয়ে না থেকে নিজেকে সফল উদ্যোক্তা বানিয়ে অন্যদের চাকুরি দিতে হবে। বর্তমানে সন্দ্বীপে নিজেকে গড়ে তোলার জন্য সব রকম সুবিধা বিদ্যমান রয়েছে।তাই নিজেকে আগামী দিনের কর্নধারে পরিনত করতে হবে।

অন্যান্য বক্তারা বলেন বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার বৃহৎ অংশই যুবসমাজ। বাংলাদেশকে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে রূপান্তর ও জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে দেশপ্রেমের মূলমন্ত্রে উজ্জ্বীবিত হয়ে যুবসমাজ দেশগঠনের কাজে নিজেদের আরো বেশি নিবেদিত করবে। এছাড়াও নারী নির্যাতন ও মাদক বিরোধী কর্মকান্ডে অংশগ্রহন করে তারা বাংলাদেশকে নিরাপদ জনপদে পরিনত করবে। সমাজের সকল অসঙ্গতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে তারা। পাশাপাশি আধুনিক জ্ঞানে সমৃদ্ধ হয়ে নিজেকে সম্পদে পরিনত করে দেশের অগ্রগতিতে ভুমিকা রাখবে।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.