সিএমপির আকবর শাহ থানার অভিযানঃ ক্লুলেস হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন ও গ্রেফতার ০২

0 ২৩২
গত ০২/১০/২০২০খ্রিঃ তারিখ দুপুর ০২:১৫ ঘটিকায় আকবরশাহ্ থানাধীন হারবাতলী গ্যাস লাইন নুর হোসেনের বাড়ীর ৫০ গজ দক্ষিণে ঝোপ থেকে একজন অজ্ঞাতনামা মহিলা(বয়স অনুমান ২৫)এর পঁচাগলা মৃত দেহ আকবরশাহ্ থানা পুলিশ উদ্ধার করে।এ সংক্রান্তে প্রাথমিক পর্যায়ে আকবরশাহ্ থানার অপমৃত্যু মামলা নং-১৪/২০২০, তারিখ-০২/১০/২০২০খ্রিঃ রুজু হয়।এ ঘটনার প্রেক্ষিতে সিএমপির আকবর শাহ থানার অফিসার ইনচার্জ জহির উদ্দিন পিপিএম এর নেতৃত্বে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই(নিঃ)/মোহাম্মদ ছায়েম প্রাথমিক তদন্তের মাধ্যমে উক্ত ভিকটিমের পরিচয় ও ঠিকানা সনাক্ত করলে ভিকটীমের ছোট ভাই মোঃ মনির হোসেন বাদী হয়ে আকবরশাহ্ থানার মামলা নং-২২,তারিখ-১৯/১০/২০২০ইং,ধারা-৩০২/২০১/৩৪ পেনাল কোড-১৮৬০ দায়ের করে।এ মামলার প্রেক্ষাপটে মোঃ আরিফ হোসেন,সহকারী পুলিশ কমিশনার (পাহাড়তলী জোন),সিএমপি,চট্টগ্রাম এর নেতৃর্ত্বে আকবরশাহ্ থানার একটি চৌকস টিম গত ২৮/১০/২০২০খ্রিঃ উক্ত ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মোঃ ফরহাদ(২৬) কে নারায়নগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানাধীন মাউরাদী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে গ্রেফতার করে।পরবর্তীতে তার দেওয়া তথ্য মতে তার সহযোগী মোঃ সেলিম প্রঃ মনির প্রঃ অজিউল্ল্যাহ(৩০)কে আকবরশাহ থানাধীন শাপলা গ্যাস লাইন বাবুলের চায়ের দোকানের পিছনে পাহাড়ের উপর তার নিজ বাড়ী থেকে ২৯/১০/২০২০খ্রিঃ তারিখ গ্রেফতার করা হয়।জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা পরকীয়ার প্রেমের সূত্র ধরে উক্ত হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করেছে বলে স্বীকার করে ও বিজ্ঞ আদালতে ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৬৪ ধারায় জবানবন্দীও প্রদান করে।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.