রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:০৭ অপরাহ্ন

খুটাখালীতে খড় খাওয়ার ‘অপরাধে’ গরু পিটিয়ে হত্যা।

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৩ জুলাই, ২০২১
  • ১১৯ বার পঠিত

সেলিম উদ্দিনঃ চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে বসতবাড়ীর উঠানের খড়ের স্তুপ থেকে খড় খাওয়ার অপরাধে একটি (বাচুর) গরুকে অমানবিকভাবে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার (২২জুলাই) রাত অনুমানিক সোয়া ১১ টার সময় বর্নিত ইউনিয়নের মধ্যম গর্জনতলী গ্রামে ঘটে এ ঘটনা।

অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার খুটাখালী মধ্যম গর্জনতলী গ্রামের জয়নাল আবেদীনের স্ত্রী রওশন আরার পালিত একটি বাচুর গরু গত ১২ জুলাই সকালে ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন মাঠে চরে বেড়ানোর সময় অসাবধানতাবশত একই এলাকার কবির আহমদ প্রকাশ মিড়া কবিরের বসতবাড়িতে ঢুকে পড়ে। একপর্যায়ে তাদের খড়ের স্তুপ থেকে খড় খেয়ে ফেলে।

এ সময় বাড়ির মালিকের পুত্র বেলাল উদ্দীন (২৮) লাঠি দিয়ে গরুটিকে হত্যার উদ্দেশ্যে পিটাতে থাকে। লাঠির আঘাতে গরুর শরীরে মারাত্নক জখম হয়। ঐ সময় গরুটি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে গরুর মাথায় পানি ঢেলে সুস্থ করে গুরুতর আহত গরুটিকে মালিকের কাছে না দিয়ে বসতবাড়ি সংলগ্ন রাস্তার মধ্যে ছেড়ে দেয়।

সংবাদ পেয়ে গরুর মালিক রওশন আরা ওই দিন সকালে গিয়ে গরুটিকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় দেখতে পায়। পরে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় অসুস্থ গরুটিকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসে ও স্থানীয় একজন পশু চিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা করানোর একপর্যায় গতকাল বৃহষ্পতিবার রাত সোয়া ১১ টার সময় গরুটি মারা যায়।

গরুর মালিক রওশন আরা জানান, গরুটি তার একমাত্র সম্বল ছিল। অমানবিক নির্যাতনের কারণে গরুটি মরে যাওয়ায় তার প্রায় ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এ অমানবিক ঘটনার সাথে জড়িত বেলাল উদ্দীন গরুর চিকিৎসার জন্য ৫ শত টাকাও দিয়েছেন। এমনকি বাচুরটিকে আহত করার পর ২৫ হাজার টাকা দামে ক্রয় করারও প্রস্তাব দিয়েছিলেন বেলাল।

স্থানীয় ৪ নং ওয়ার্ড মেম্বার অলি আহমদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। উভয় পক্ষকে নিয়ে বৈঠকের মাধ্যমে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Jagroto Chattogram
banglawebs999995